Receive up-to-the-minute news updates on the hottest topics with NewsHub. Install now.

কোনো কিছুই গায়ে লাগছে না, ভাগ্য ভালো হলে দেশত্যাগ করুন: ড. কামাল

May 7, 2018 5:33 PM
3 0
কোনো কিছুই গায়ে লাগছে না, ভাগ্য ভালো হলে দেশত্যাগ করুন: ড. কামাল

ড. কামাল বলেন, সংবিধানে বলা আছে- জনগণের পক্ষে ক্ষমতা প্রয়োগ করবেন জনগণের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা। ঘরে-ঘরে, পাড়া-মহল্লায় গিয়ে বলতে হবে, আগামীতে এমন প্রতিনিধি নির্বাচন করবো যারা হবেন আমাদের সত্যিকারের প্রতিনিধি। যারা টাকা দিয়ে মনোনয়ন কেনেন তারা যেন আমাদের প্রতিনিধি না হন। যারা কোটি কোটি টাকা দিয়ে মনোনয়ন কেনেন ও বিনা ভোটে এমপি হন তারা আমাদের প্রতিনিধি হতে পারেন না। যারা বলছেন তারা গণতান্ত্রিক সরকার, জনগণের সঙ্গে তাদের কি সম্পর্ক আছে?

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক বলেন- আগে শুনতাম, ১, ২ বা বড় জোর ১০০ কোটি টাকা দুর্নীতি বা পাচার হয়েছে। এখন শুনি হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। সাবেক প্রেসিডেন্টের ছেলে মরহুম কোকো ২/৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছিলেন। সিঙ্গাপুর থেকে তার সেই টাকা ফেরৎ আনা হলো, আমরা সাধুবাদ জানিয়েছিলাম। এখন শুনি সাড়ে চার হাজার কোটি টাকাও নাকি কোনো টাকা নয়। হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার হলেও সেসবের কোনো তদন্ত নেই। আমরা এত বলছি, কিন্তু তাদের চামড়া যেন মহাগ-ারের। সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদকে ইঙ্গিত করে ড. কামাল বলেন, পদত্যাগ করে উনি নিরাপদে চলে যান। ভাগ্য ভালো বলে তার বিচার হয়েছিল, জেল খেটেছিলেন। কিন্তু সেদিন রাস্তায় সবার হাতে লাঠি ছিল। জনগণের চোখ ছিল গাছের দিকে, পদত্যাগের পরপর ধরতে পারলে জনগণ তাকে গাছে লটকিয়ে দিত। কিন্তু এই ব্যক্তির এখনও কোনো শিক্ষা হয়নি। মাঝেমধ্যে উনি কিছু উচিত কথা বলেন। পরদিন ওনার মামলার তারিখ পড়ে। আবার তিনি নিরব হয়ে যান। কিছুদিন পর আবার কথা বলতে শুরু করেন। ড. কামাল আরও বলেন, এসব থেকে কেউ শিক্ষা নিচ্ছে না। ভবিষ্যতে যে কারও ২০/২৫ বছর জেল হবে না সেটির কি নিশ্চয়তা আছে?

উত্স: ittefaq.com.bd

সামাজিক নেটওয়ার্কের মধ্যে শেয়ার করুন:

মন্তব্য - 0