Receive up-to-the-minute news updates on the hottest topics with NewsHub. Install now.

পলায়মান স্ত্রীর সদয় সমবেদনা...-633080

May 6, 2018 6:38 AM
5 0
পলায়মান স্ত্রীর সদয় সমবেদনা...-633080

একটু ভেবে দেখুন, মেয়েটি কিন্তু চাইলে এই নিয়ে মেলা পানি ঘোলা করতে পারতেন। তখন আবার সেই ঘোলা পানিতে তার বাপ-শ্বশুর দুজন মিলে আরামসে মৎস্য শিকার করতে পারতেন। থানা-পুলিশ হত। দুই পরিবারের পুরুষ সদস্যদের তুলে নিয়ে গিয়ে পুলিশ টুকটাক খাতিরদারি করতেন। টানা-হেঁচড়া, জেরা-ফেরা, সে মেলা হুজ্জত। জেরায় জেরায় যাকে বলে জান জেরবার!

মেয়েটি বিদুষী, তাতে কিছুমাত্র সন্দিহান নই আমি। কারণ তিনি বুঝেশুনেই প্রেমিকের মুঠোফোন থেকে কল করেছেন স্বামীকে। অর্থাৎ স্বামীসাহেব ফোন নম্বর দেখেই বুঝে গেলেন তার স্ত্রী জায়গামতো মানে তার প্রেমিকের কোলে শুয়ে দিব্যি দুলছেন। তাই দৃশ্যত ও কার্যত স্বামী হিসেবে তার স্ত্রীর প্রতি কোনোরূপ দায় বা দয়া প্রদর্শনের আর দরকার পড়লো না। সবাই বলো, মারহাবা!

মেয়েটি মোটেও চরিত্রহীনা নন। যারা মিসোজিনিস্ট, মানে কেতাবি বাংলায় নারীবিদ্বেষী, তারা দুষ্ট হলওয়েলের মতোন মেয়েটির চরিত্রে কলঙ্ক লেপনের মিথ্যে প্রয়াস চালিয়ে খুব একটা সুবিধে করতে পারবেন না। কারণ পাবলিক বোবা হতে পারে, তবে বোকা নয় কিন্তু। মেয়েটির প্রেম তার প্রিয়তমার জন্য ‘ইনট্যাক্ট’ ছিল। তাই স্বামী বেচারা সামাজিক নিয়মে চর দখলের মতো তাকে কিছুদিন জবরদখল করেছিলেন বটে। তবে স্থায়ী জায়গির স্থাপন করতে পারেননি। মেয়েটি মেনে নিয়েছিল, তবে তা ক্ষণিকের জন্য। তিনি জানেন, মনে নেয়া আর মেনে নেয়া এক জিনিস নয়। যেমন চিনি আর সুইটনার। দুটোই মিষ্টি, তবে সুইটনার চিনির ন্যায় প্রাকৃতিক নয়, বরং কৃত্রিম। খেতে বিস্বাদ!

উত্স: kalerkantho.com

সামাজিক নেটওয়ার্কের মধ্যে শেয়ার করুন:

মন্তব্য - 0